বাংলাদেশের সাংবাদিকতায় উত্তরাঞ্চল 

–হাসিবুর রহমান বিলু    

গনমাধ্যমে এখন উত্তরাঞ্চলের গুরুত্ব তুলনা মূলকভাবে অন্যান্য এলাকার মতোই, কোন কোন ক্ষেত্রে একটু বেশি। অথচ স্বাধীনতার পর দেশের অধিকাংশ গনমাধ্যমই,  বিশেষত পত্রিকা কয়েক বছর উত্তরাঞ্চলকে তেমন গুরুত্ব দেয়নি। তবে মঙ্গা বা অভাবের মতো কিছু বিষয় ছিলো ব্যতিক্রম।

’৭৮ সালে যখন শখের বসে সাংবাদিকতা শুরু করি তখন দৈনিক পত্রিকার পাতায় খুঁজতাম এ অঞ্চলের খবর, কিন’ খুব কমদিনই বড় শিরোনামে এ অঞ্চলের খবর আমার নজরে পড়েছে। তখন দৈনিক ইত্তেফাক আর সংবাদ-এর মতো কাগজ যেতো সচেতন পাঠকের ঘরে। দৈনিক বাংলা আর বাংলাদেশ অবজারভারও সরকারী দপ্তর গুলোর পাশাপাশি যেতো অভিজাত পরিবারে।  আর জেলায় জেলায় আঞ্চলিক পত্রিকা প্রকাশনার অনুমতিও সরকার দিচ্ছে একের পর এক। এ অঞ্চলের খুব কম জেলা আছে যেখানে স’ানীয় ভাবে একাধিক পত্রিকা বের করা হয়না।

কিন- পরিসি’তির পরবর্তন হতে শুরু করে ৮০ দশকের শুরুতে, সম্ভবত বাংলা পত্রিকা গুলোর মধ্যে দৈনিক সংবাদই প্রথম উত্তরাঞ্চলের খবর গুরুত্বের সাথে ছাপতে শুরু করে যা এখনো ধরে রেখেছে পত্রিকাটি। আর এ জন্য যে মানুষটির অবদান সবচে বেশি তিনি  শ্রদ্ধেয় মোনাজাত উদ্দিন। দীর্ঘদিন তার সাথে কাজ করেছি বলেই আমি বলতে চাই উত্তরাঞ্চলকে শুধু দেশেই নয়, বিদেশেও পরিচিত করেছেন তিনি। আর তাঁর এ অবদানের সুবাদে আমরা এখন দেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ন এলাকা উত্তরাঞ্চল থেকে সহজেই কাজ করার সুযোগ পাচ্ছি নানা ধরনের গনমাধ্যমে। 

দৈনিক জনকন্ঠ যখন দেশের অন্যান্য এলাকার মতোই বগুড়া থেকে ছাপা হতো তখনও কিন’ গুরুত্ব পেয়েছে উত্তরাঞ্চলের খবর। আর দৈনিক প্রথম আলো আলাদা করে বের করে উত্তরাঞ্চলের পাতা।  বগুড়া থেকে এখন নিয়মিত দৈনিক পত্রিকা বের হয় কমপক্ষে ১০টা। আগামীতে হয়ত প্রকাশ হবে আরও পত্রিকা। এক সময় বগুড়ার পরিচিতি ছিলো শিল্প-নগরী হিসেবে আর এখন কিন- পত্রিকার শহর বলা হয় বগুড়াকে এতো গেলো  পত্রিকার খবরের কথা। 

ইলেকট্রনিক মিডিয়া ও কিন- এখন যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছে উত্তরাঞ্চলকে। কী টেলিভিশন কী রেডিও সব খানেই গুরুত্ব পাচ্ছে উত্তরাঞ্চল। যদি কমিউনিটি রেডিওর কথা ধরা হয় তাহলে দেখা যাবে এখন পর্যন- দেশে যে ১৪টি কমিউনিটি রেডিও চলছে তার মধ্যে ৫টি আছে উত্তরাঞ্চলে। রেডিও টুডে বগুড়ায় তাদের সমপ্রচার কেন্দ্র স’াপন করেছে আর রেডিও ফুর্তিও তাদের একটি কেন্দ্র বসিয়েছে রাজশাহীতে। আগামীতে হয়ত অন্যান্য বানিজ্যিক রেডিও তাদের কেন্দ্র স’াপন করবে। আর টেলিভিশন স্টেশন গুলোর মধ্যে অনেক ষ্টেশনই লাইভ প্রোগ্রাম করে বিশেষ বিষয় নিয়ে। সব মিলিয়ে গনমাধ্যমের কাছে উত্তরাঞ্চলের গুরুত্ব কিন’ দিন দিন বেড়েই চলেছে। তবে এ কথাও ঠিক যে গনমাধ্যমের কাছে উত্তরাঞ্চলের গুরুত্ব যে বাড়ছে ঠিক সেভাবে এ অঞ্চলে কর্মরত সাংবাদিকদের অনেকেই তাদের আর্থিক সুবিধা পাচ্ছেন না। তবে এ পেশায় টিকে থাকতে গেলে দক্ষতা বৃদ্ধির বিষয়টি গুরুত্ব দিতে হবে প্রত্যেক গনমাধ্যম কর্র্মীকে।

 

লেখক পরিচিতি: হাসিবুর রহমান বিলু

ব্যুরো চীফ,ইনডিফিন্ডেন্ট টেলিভিশন

বগুড়া অফিস।